ভর্তি

ইউরোপীয় বিশ্ববিদ্যালয়ে উচ্চ শিক্ষার ৩ টি স্তর রয়েছে।

১। ব্যাচেলর প্রোগ্রাম
২। মাস্টার প্রোগ্রাম
৩। ডক্টরাল প্রোগ্রাম

প্রতিটি বিশ্ববিদ্যালয়ে এই ৩ টি প্রোগ্রাম বিভিন্ন ফ্যাকাল্টির আন্ডারে থাকে। তবে কিছু কিছু ফ্যাকাল্টি তে ডক্টরাল প্রোগ্রাম নেই। এই ৩ টি প্রোগ্রাম মূলত ২ টি ভাষায় পড়ানো হয়। প্রথমটি তাদের মাতৃভাষায় এবং দ্বিতীয়টি ইংরেজি ভাষায়। প্রতিটি পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের মুল নিয়ামক হল, উচ্চ মানসম্মত শিক্ষা প্রদান, চমৎকার গবেষণার রেকর্ড এবং উচ্চ যোগ্যতাসম্পন্ন অধ্যাপক। ইউরোপীয় বিশ্ববিদ্যালয়ে প্রচুর কোর্স রয়েছে, সেখান থেকে কাঙ্ক্ষিত বিষয় নির্বাচন করা খুবি সহজ। তবে বিষয় নির্বাচনের আগে অবশ্যই কিছু ফ্যাক্টর নিয়ে ছোটখাটো রিসার্চ করতে হবে যেমন, যে বিষয় নিয়ে পড়াশোনা করবেন তাঁর সাথে বাংলাদেশের প্রেক্ষাপটের কোন মিল রয়েছে কিনা, কারণ আমরা চাই আপনারা ডিগ্রী শেষে নিজ দেশে ফিরে আসুন। উক্ত বিষয়ের ভবিষ্যৎ সম্ভাবনা কেমন, আর আপনি কতটুকু এই বিষয় সম্পর্কে জানেন। অনেকেই হুট করে না বুঝে বিষয় নির্বাচন করে ফেলে পরবর্তীতে যা কাঁটা হয়ে দাঁড়ায়। প্রোগ্রাম বা কোর্স নির্বাচন করার পূর্বে আরো একটি গুরুত্বপূর্ণ ফ্যাক্ট রয়েছে যা অবশ্যই বিবেচনায় রাখতে হবে- আপনি যে পরিবারের সাথে বিলং করছেন তাঁরা কি আপনার ইউরোপে উচ্চ শিক্ষার খরচ বহন করতে পারবে? এখন হয়ত অনেকেই এটা ভাবছেন যে, পরিবারের সামর্থ্যের কি প্রয়োজন রয়েছে। ইউরোপে গিয়ে নিজের খরচ নিজেই ব্যবস্থা করব। যারা এই ধরনের দিবাস্বপ্ন দেখছেন তাঁরা সত্যি আবেগের ভিতরে আছেন, ইউরোপ কেন পৃথিবীর কোথাও পড়াশুনার খরচ খন্ডকালীন কাজ করে যোগান দেওয়া যায় না। যদি কেউ বলে যে, সে ইউরোপে থেকে সকল খরচ নিজেই চালাচ্ছে তাহলে বুঝতে হবে এই শিক্ষার্থী পড়াশোনার ভিতরে নেই, সে অড জবের বেড়াজালে বাধা পরে গিয়েছে।  কেন সকল খরচ যোগান দিতে পারবেন না এই নিয়ে ব্লগ সেকশনে বিস্তারিত তথ্য রয়েছে। যদি পরিবার আপানর খরচ যোগানে সামর্থ্য-বান হয় কেবল তখনি উচ্চ শিক্ষার জন্য প্রস্তুতি নিন।

 ব্যাচেলর এবং মাস্টার প্রোগ্রাম

সাধারণত ইউরোপীয় বিশ্ববিদ্যালয়ে ব্যাচেলর প্রোগ্রাম ৩ বছর মেয়াদী এবং মাস্টার্স প্রোগ্রাম ২ বছর মেয়াদী হয় তবে কিছু প্রকৌশল কোর্স ৪ বছর মেয়াদী রয়েছে। চেক প্রজাতন্ত্র, স্লোভাকিয়া, স্লোভেনিয়া, এস্তোনিয়ায় প্রচুর ব্যাচেলর এবং মাস্টার  প্রোগ্রাম রয়েছে, তবে স্ব স্ব বিশ্ববিদ্যালয়ের ব্যাচেলর এবং মাস্টার্স প্রোগ্রামে ভর্তির যোগ্যতার ভিন্নতা রয়েছে। বর্তমানে ইউরোপীয় সকল বিশ্ববিদ্যালয়ে European Credit and Accumulation Transfer System (ECTS) চালু রয়েছে। ৩ বছরের ব্যাচেলর প্রোগ্রাম কে ১৮০ ইসিটিএস ধরা হয় এবং ২ বছরে মাস্টার্স প্রোগ্রাম কে ১২০ ইসিটিএস অর্থাৎ প্রতি সেমিস্টার ৩০ ইসিটিএস এবং প্রতি বছর ৬০ ইসিটিএস। ইসিটিএস নিয়ে বিস্তারিত তথ্য ব্লগ সেকশনে রয়েছে। যদি আপনার কোর্স ৪ বছরের হয় সেক্ষেত্রে আপনি ২৪০ ইসিটিএস সম্পন্ন করলেন।

মন্তব্যসমূহ

Facebook